আজ শুক্রবার, ১৪ মে, ২০২১

মুক্তিপণের জন্য অপহৃত স্কুল ছাত্রকে হত্যা

 প্রকাশিত: ২০২১-০১-২৭ ১১:১০:৫৬

ডেইলিসিলেটনিউজ.কম:

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে এক স্কুল ছাত্র নিহত হয়েছেন, যাকে মুক্তিপণের জন্য অপহরণ করা হয়েছিল বলে পুলিশ জানিয়েছে।

উপজেলার নুরপুর ইউনিয়ানের পশ্চিম নছরতপুর গ্রামে মঙ্গলবার এই ছাত্রের লাশ পাওয়া যায়।

নিহত তানভীর আহমেদ (১৬) নছরতপুর গ্রামের ফারুক মিয়ার ছেলে। তানভীর স্থানীয় হাজী আফরাজ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

এই ঘটনায় পুলিশ স্থানীয় জলিল মিয়ার ছেলে জাহেদ মিয়া (২৪), সৈয়দ আলীর ছেলে উজ্জ্বল মিয়া (২২) ও মলাই মিয়ার ছেলে শান্ত মিয়াকে (১৮) আটক করেছে।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি অজয় চন্দ্র দেব বলেন, গত শনিবার [২৪ জানুয়ারি] রাত ৮টার দিকে তানভীরকে অপহরণ করে একই গ্রামের কয়েকজন যুবক। পরে তারা তানভীরের বাবার মোবাইলে ফোন করে ৮০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

তানভীরের বাবা বিষয়টি শায়েস্তাগঞ্জ থানা পুলিশকে অবগত করলে পুলিশ তদন্ত শুরু করে বলে ওসি জানান।  

ওসি আরও বলেন, তদন্তের এক পর্যায়ে রোববার রাতে অপহরণকারী সন্দেহে জাহেদ ও শান্তকে আটক করে। পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং অপহরণ চক্রের হোতা উজ্জ্বলের নাম প্রকাশ করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার সকালে উজ্জ্বলকে আটক করে পুলিশ।

উজ্জ্বলের দেওয়া তথ্যমতে দুপুরে ওই ছাত্রের মরদেহ তাদের বাড়ির পাশের একটি পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়।”

ওসি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অপহরকারীরা তানভীরকে গলায় ফাঁস ও বুকে ছুরি মেরে হত্যার কথা স্বীকার করেছে। মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে তারা তাকে হত্যা করে মরদেহ গুমের উদ্দেশ্যে পুকুরে পুঁতে রাখে।

এই ঘটনার পেছনে আরও কোনো কারণ আছে কিনা পুলিশ তা খতিয়ে দেখছে বলে ওসি জানান।

আপনার মন্তব্য