আজ শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০

জননেতা হিজম ইরাবতের ৬৯ তম প্রয়াণ দিবস উৎযাপন করেছে বামছাস

 প্রকাশিত: ২০২০-০৯-২৬ ২৩:৪৮:২৬

মণিপুরী জাতির আলোকবর্তিকা হিজম ইরাবতের ৬৯তম প্রয়াণ দিবসে বাসছাসের আয়োজনে আলোচনা সভা

 

মণিপুরী জাতির আলোকবর্তিকা হিজম ইরাবতের ৬৯তম প্রয়াণ দিবস ছিল আজ আজ ২৬ সেপ্টেম্বর। এ উপলক্ষে "স্মৃতির তর্পণে" শিরোনামে মীর্জাজাঙ্গালস্থ মণিপুরী রাজবাড়ী শ্রী শ্রী মহাপ্রভু মন্ডপে বিকেল ৫ টায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে এক অনাড়ম্বর  অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বাংলাদেশ মনিপুরী ছাত্র সমিতি (বামছাস)।

শুরুতে মঙ্গলময় প্রদীপ প্রজ্বলিত করে জননেতা হিজম ইরাবতের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধাঞ্জলী প্রদান করা হয়। জননেতার সুর করা গানের ছন্দে এসোসিয়েশন ফর মণিপুরী কালচার এন্ড আর্টস  সিলেটের ক্ষুদে শিল্পীরা মনোমুগ্ধকর নৃত্য পরিবেশন করেন।

পরে আলোচনা সভায় বামছাস কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি এইচ মনিলাল সিংহের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইরেম প্রদীপ কুমার সিংহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন নাট্যজন বামছাসের উপদেষ্টা এম উত্তম সিংহ রতন, সিলেট দেবালয় রথযাত্রা কমিটির সাধারণ সম্পাদক য়ুম্নাম নৃপেন্দ্র সিংহ এবং একাডেমী ফর মণিপুরী কালচার এন্ড আর্টস, সিলেটের পরিচালক সাধারণ সম্পাদক শান্তনা দেবী।

অতিথিবৃন্দরা বলেন, হিজম ইরাবতের সংক্ষিপ্ত বৈচিত্রময় জীবনে মণিপুরী জাতিকে তিনি জাগ্রত করার যে প্রচেষ্টা এবং পদক্ষেপ নিয়েছিলেন তা আজও স্মরণ করে সম্মান জানান সকলে। তারা বলেন, মণিপুরী জাতিকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে ক্ষণজন্মা নেতার লালায়িত স্বপ্ন পূরণের জন্য আমরা সবাই হাতে হাত মিলিয়ে দ্বিধা দ্বন্ধ ভুলে সঠিকভাবে কাজ করতে  হবে। নতুবা আলোর মুখ দেখা হবেনা।

বামছাসের সাধারণ সম্পাদক এস কেশব সিংহ শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, বামছাস বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে যাচ্ছে তার মধ্যে অন্যতম হলো প্রাথমিক জুনিয়র বৃত্তি পরীক্ষা গ্রহণ। এছাড়াও শিক্ষা কার্যক্রমের উন্নয়নে সহযাত্রি হতেও নানামূখী পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, উপদেষ্টামণ্ডলীদের সার্বিক সহযোগীতা ছাড়া এবং সদস্যদের অক্লান্ত পরিশ্রম ছাড়া এরকম মহতী আয়োজনের সফলতা প্রায় অসম্ভব।

এসময় এরকম অনুষ্ঠান আয়োজনে বামছাসের প্রধান উপদেষ্টা আমেরিকা প্রবাসী  অসেম সত্যজিৎসিংহসহ যারা সহযোগিতা করেন তাদের সকলের প্রতি সম্মান জানান আয়োজকরা।

এছাড়াও বক্তব্য্ প্রদান করেন মহিলা কবি রওশন আরা বাশি,  ডা. বাবলী দেবী, সমাজ সেবক কে এইচ সমেন্দ্র সিংহ, ময়েংবম মুকেশ প্রমুখ।

আলোচনা পর্বের শেষে এমকা' সিনিয়র শিল্পী এল বিথীকা এবং সন্ধীপা দেবী যৌথভাবে মণিপুরী নৃত্য পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন বাংলাদেশ মণিপুরী ছাত্র সমিতি (বামছাস) - সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদিকা য়ুম্নাম স্নিগ্ধা।

আপনার মন্তব্য