আজ রবিবার, ০৯ অগাস্ট, ২০২০

জাউয়া, মাধবপুর ও লাখাই সড়কে ৪ জনের প্রাণহানি

 প্রকাশিত: ২০২০-০১-০৯ ১২:৪১:৩৪

সুনামগঞ্জের জাউয়া এবং হবিগঞ্জের মাধবপুর ও লাখাইয়ে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়কের জাউয়াবাজার এলাকার বড়কাপন পয়েন্টে মোটরসাইকেল ও পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেল আরোহী ও অজ্ঞাতনামা বৃদ্ধা, সিলেট মহাসড়কের

হবিগঞ্জের মাধবপুর এলাকার শাহজিবাজার ৩শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ প্লান্টের সামনে ইমা গাড়ির হেলপার ও লাখাই আঞ্চলিক সড়কে সিএনজিচালিত অটোরিক্সার ধাক্কায় এক বৃদ্ধ মারা গেছেন।


জাউয়া : জাউয়াবাজার (ছাতক) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, গতকাল বুধবার বিকেলে সুনামগঞ্জগামী একটি দ্রুতগতির পিকআপ (সিলেট মেট্রো ন-১১-০৫৯৭) ও বিপরীত দিক থেকে আসা সিলেটগামী একটি মোটরসাইকেল (নং- সিলেট মেট্রো ল-১১-০৩১৯) জাউয়াবাজার বড়কাপন পয়েন্টে আসলে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ সময় ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল আরোহী দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার বীরগাঁও ইউনিয়নের সলফ গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য এখলাছুর রহমানের পুত্র হাসান আহমদ সুমন (২৮) ও পথচারী অজ্ঞাতনামা বৃদ্ধার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ দু’টি উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ এবং মোটরসাইকেল ও পিকআপটি জব্দ করে।

এ ঘটনায় ঘাতক পিকআপ চালক জাবেদ মিয়া (২০) কে স্থানীয় জনতা আটক করে হাইওয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। সে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার জয়কলস ইউনিয়নের পার্বতীপুর গ্রামের চমক আলীর পুত্র। হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ এসআই আমিন উদ্দিন দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


মাধবপুর : মাধবপুর (হবিগঞ্জ) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, গতকাল বুধবার সকাল ৮টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শাহজিবাজার ৩শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ প্লান্টের সামনে হবিগঞ্জ থেকে মাধবপুরগামী একটি যাত্রীবাহী ইমা গাড়ি ব্রেক ফেল করে গাছের সাথে ধাক্কা লাগলে ইমা গাড়ির হেলপার আলম মিয়া (১৮) ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ সময় আহত হন আরও ৬ জন যাত্রী।
ট্রাফিক সার্জেন্ট মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, দুর্ঘটনার পর চালক পালিয়ে গেছে। তবে, গাড়িটি করা হয়েছে।


লাখাই : লাখাই (হবিগঞ্জ) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, গত মঙ্গলবার বিকেলে স্থানীয় বুল্লাবাজার থেকে সওদা শেষে পায়ে হেঁটে রাঢ়িশাল গ্রামের নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন সুবাস সূত্রধর (৬৫)। তিনি রাঢ়িশাল ব্রিজ সংলগ্ন স্থানে আসলে একটি সিএনজিচালিত অটোরিক্সা তাকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি গুরুতর আহত হলে তাকে প্রথমে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে ও পরে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। নিহত সুবাস মৃত শশীমোহন সূত্রধরের পুত্র।

আপনার মন্তব্য