আজ শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০

ক্রিকেট বিশ্বকে বার্তা দিতে চায় বিসিবি

 প্রকাশিত: ২০২০-১০-০৯ ১৪:০২:৩৩

রোববার মাঠে গড়াবে তিন দল নিয়ে ওয়ানডে টুর্নামেন্ট। আসরের নাম রাখা হচ্ছে ‘বিসিবি প্রেসিডেন্ট’স কাপ’। সেই মার্চে ঢাকা প্রিমিয়ার লীগে শেষবার ৫০ ওভারের ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিল এ দেশের ক্রিকেটাররা। এরপর করোনা মহামারিতে সব স্থগিত। ৭ মাস পর প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরছেন ক্রিকেটাররা। এই আসর শেষ হলে মধ্য নভেম্বরে শুরু হতে পারে আরো একটি টুর্নামেন্ট। আর ঘরোয়া ক্রিকেট চালু করতেও সবরকম কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। করোনার কঠিন সময় পেরিয়ে এখন একটাই লক্ষ্য, খেলায় ফেরা।

তাই চলছে একাধিক ঘরোয়া ক্রিকেট আসর আয়োজনের তোড়জোড়। কারণ, এর মাধ্যমে ক্রিকেট বিশ্বকে বার্তা দিতে চায় দেশের ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটি।  যেন নতুন বছরের জানুয়ারি থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামতে পারে টাইগাররা। গতকাল বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামুদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘এটা (টুর্নামেন্ট) তো একটা বার্তা অবশ্যই। খেলাটা শুরু হলে যে শুধু  প্লেয়াররা বেনিফিটেড হবে, তা না। আপনারা (সাংবাদমাধ্যম), আমরা (বিসিবি), ক্লাবগুলো, বিভিন্ন পর্যায়ের স্টেক হোল্ডার সবারই লাভ। সুতরাং এটা একটা কমপ্লিট ম্যাসেজ  যে ক্রিকেটটা আস্তে আস্তে আমরা ফেরানোর চেষ্টা করছি। এবং সেক্ষেত্রে যদি আমরা সফল হতে পারি সবার জন্যই ভালো হবে।’

ওয়ানডে টুর্নামেন্টের জন্য নয়া সুরক্ষা বলয়
ওয়ানডে টুর্নামেন্টের জন্য আবারো তৈরি করা হচ্ছে জৈব সুরক্ষা বলয়। তার জন্য ৫৪ ক্রিকেটারসহ প্রায় ১০০ জনের  কোভিড-১৯ পরীক্ষা আজ। পরীক্ষায় নেগেটিভ সবাই আগামীকাল উঠে যাবেন হোটেলে। এ বিষয়ে সিইও বলেন, ‘আমরা সবাইকে  জৈব সুরক্ষা বলয়ের (বায়ো বাবল) মধ্যে নিয়ে আসবো। ক্রিকেটার, সাপোর্ট স্টাফ ও গ্রাউন্ডসের অন্য যারা থাকবেন, লজিস্টিকে যারা কাজ করবেন এরকম সংশ্লিষ্টদেরও আমরা করোনা  টেস্টের আওতায় নিয়ে আসবো। ১০ই অক্টোবর তারা চেক ইন করবেন। তখন থেকেই বায়ো বাবল এরিয়াটা আমরা ম্যানেজ করবো।

দীর্ঘমেয়াদি ব্যাটিং পরামর্শক
টাইগারদের জন্য ব্যাটিং পরামর্শক নিয়ে সিইও বলেন, ‘ব্যাটিং পরামর্শক মূলত জাতীয় দলের শ্রীলঙ্কা সফরকে কেন্দ্র করেই হচ্ছিল। প্রাথমিকভাবে যাকে (ক্রেইগ ম্যাকমিলান) আমরা নিয়েছিলাম পারিবারিক কারণে তার আসা সম্ভব হয়নি। পরে আমরা দ্রুতই কয়েকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে একজনকে কনফার্ম করেছিলাম। যেহেতু আমাদের ঐ নিয়োগটা হয়েছিল কেবল শ্রীলঙ্কা ট্যুর বেসিসে। এখন যাকেই নিই আমরা লং টার্ম বেসিসেই নিবো। তার (ম্যাকমিলান) সঙ্গেও যোগাযোগ আছে যেহেতু তখন তার পারিবারিক অবস্থা একটা সিরিজে যোগ দেওয়ার মতো ছিল না। তখন উনি অপারগতা জানিয়েছেন। এখন উনিও আমাদের বিবেচনায় আছেন।’
এর আগে বিসিবি জানিয়েছিল, পিতার মৃত্যুর কারণে ওই সময় বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব নিতে পারেননি ম্যাকমিলান।

নারী দলের প্রধান কোচ
দীর্ঘ দিন থেকে নেই নারী দলের প্রধান কোচ। এ বিষয়ে বিসিবির সিইও বলেন, ‘নারী দলের কোচ নিয়েও আমরা একটা শর্ট লিস্ট করে রেখেছিলাম। সেই শর্ট লিস্টের আওতায় আমরা যোগাযোগ করছি। আমাদের কাছে যাকে বেশি অভিজ্ঞ মনে হবে ও যে আমাদের চাহিদা ফুলফিল করতে পারবে সেটার উপর ভিত্তি করেই প্রধান কোচ চূড়ান্ত করে ফেলবো। তারপর প্রধান কোচের সঙ্গে আলোচনা করে অন্যান্য যে সাপোর্ট স্টাফ আছে সেগুলো নিয়োগ দিয়ে দিব।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ
জানুয়ারিতে আসছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল। এই সফর নিয়ে সিইও বলেন, এখন পর্যন্ত এফটিপি কমিটমেন্ট অনুসারেই আছে। আমাদের সঙ্গে কথা হচ্ছে। আমাদের কাছে কিছু তথ্য  চেয়েছে,  সেসব দিয়েছি। আরেকটা বিষয় আমাদের মাননীয় সভাপতি আগেই বলেছেন আমরা আস্তে আস্তে ক্রিকেটে ঢোকার চেষ্টা করছি। পদক্ষেপগুলো আমরা  সেভাবেই নিচ্ছি। আমরা প্রাথমিকভাবে আমাদের ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত অনুশীলন এভেইলেবল করি। পরবর্তীতে আমরা দলীয় অনুশীলন করি, ইতোমধ্যে কয়েকটি অনুশীলন ম্যাচের আয়োজন করা হয়েছে। যদিও এটা খুবই সীমিত আকারে করা হয়েছে। এখন আমরা ধাপে ধাপে এগোচ্ছি।  বিসিবি  প্রেসিডেন্ট কাপ আয়োজনের পরই আমাদের আরেকটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনা রয়েছে। তারপরই আমরা অন্যান্য টুর্নামেন্ট ও আন্তর্জাতিক সিরিজ আয়োজনের পরিকল্পনা করছি।

আপনার মন্তব্য