আজ রবিবার, ০৯ অগাস্ট, ২০২০

১৮০ যাত্রী নিয়ে ইরানে ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্ত

 প্রকাশিত: ২০২০-০১-০৮ ১২:৩৭:৩৯

১৮০ জন যাত্রী নিয়ে ইরানে ইউক্রেন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। ইরানের ইমাম খোমেনি বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের পর দক্ষিণ  তেহরানের একটি শহরতলী এলাকায় বিধ্বস্ত হয় বিমানটি। ১৮০ জন যাত্রী ছাড়াও ক্রু’র রয়েছেন বিমানটিতে।

ইরানের আধা-রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ সংস্থা ফারস নিউজের এক টুইটের বরাত দিয়ে রয়টার্স এ খবর দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বুধবার কারিগরি ত্রুটির কারণে বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে।

তাৎক্ষণিকভাবে এ দুর্ঘটনার বিস্তারিত তথ্য জানা যায়নি। বিমানটি ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের উদ্দেশ্যে ইমান খোমেনি বিমানবন্দর থেকে রওনা দিয়েছিল বলে জানা গেছে।

এদিকে, ইরানের জরুরি সেবা বিভাগের প্রধান পিরহোসেন কোলিভান্দ দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশন চ্যানেলকে জানিয়েছেন, বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর তাতে আগুন ধরে গিয়েছে। আমরা সেখানে উদ্ধারকর্মী পাঠিয়েছি। আমরা হয়তো  সেখানকার কিছু যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করতে সমর্থ হবো।

মার্কিন হামলায় ইরান রেভ্যুলেশনারি গার্ডের জেনারেল কাসেমি সোলেমানির মৃত্যুর জের জের ধরে ইরানে মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার কয়েক ঘণ্টা পর এই বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনা ঘটলো।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ইরান-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কের কোনো যোগসূত্র এ দুর্ঘটনার সঙ্গে রয়েছে কি না, সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।১৮০ জন যাত্রী নিয়ে ইরানে ইউক্রেন ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে।

ইরানের ইমাম খোমেনি বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের পর দক্ষিণ  তেহরানের একটি শহরতলী এলাকায় বিধ্বস্ত হয় বিমানটি। ১৮০ জন যাত্রী ছাড়াও ক্রু’র রয়েছেন বিমানটিতে।


ইরানের আধা-রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ সংস্থা ফারস নিউজের এক টুইটের বরাত দিয়ে রয়টার্স এ খবর দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বুধবার কারিগরি ত্রুটির কারণে বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে।

তাৎক্ষণিকভাবে এ দুর্ঘটনার বিস্তারিত তথ্য জানা যায়নি। বিমানটি ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের উদ্দেশ্যে ইমান খোমেনি বিমানবন্দর থেকে রওনা দিয়েছিল বলে জানা গেছে।

এদিকে, ইরানের জরুরি সেবা বিভাগের প্রধান পিরহোসেন কোলিভান্দ দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশন চ্যানেলকে জানিয়েছেন, বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর তাতে আগুন ধরে গিয়েছে। আমরা সেখানে উদ্ধারকর্মী পাঠিয়েছি। আমরা হয়তো  সেখানকার কিছু যাত্রীকে জীবিত উদ্ধার করতে সমর্থ হবো।

মার্কিন হামলায় ইরান রেভ্যুলেশনারি গার্ডের জেনারেল কাসেমি সোলেমানির মৃত্যুর জের জের ধরে ইরানে মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার কয়েক ঘণ্টা পর এই বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনা ঘটলো। বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ইরান-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কের কোনো যোগসূত্র এ দুর্ঘটনার সঙ্গে রয়েছে কি না, সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

আপনার মন্তব্য