আজ শনিবার, ৩০ মে, ২০২০

শিক্ষার্থীদের কোচিং করতে যারা বাধ্য করেন তারা অপরাধ করছেন: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি

 প্রকাশিত: ২০১৯-০২-২০ ১৯:৪৫:৫৯

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষকদের কোচিং করানো বন্ধ করতে হবে।নিজ প্রতিষ্ঠানে না পড়িয়ে যারা তাদের শিক্ষার্থীদের কোচিং করতে বাধ্য করেন তারা অপরাধ করছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি।মন্ত্রী বলেন, এমনকি কোচিং না করলে ওই শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের ফেল করিয়ে দেন।তাই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সারাদেশে অভিযান চালাচ্ছে আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী। 



বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র, কুমুদিনী কমপ্লেক্স পরিদর্শন এবং ভারতেশ্বরী হোমসের শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন।



শিক্ষামন্ত্রী বলেন,কোচিং সেন্টার অনেক রকমের আছে।কোচিং সেন্টার যেখানে হয়তো জিআরই,টোফেল সেগুলো যেখানে সেখানে হয়।সেগুলো এক রকমের।কোথাও আছে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য কোচিং।সেটি ভিন্নরকমের।যেখানে শিক্ষকেরা শ্রেণিতে পড়াশুনা না করিয়ে তাদের নিজেদের বাড়িতে বা কোনো কোচিং সেন্টারে তাদের স্কুলের শিক্ষার্থীদের পড়তে বাধ্য করেন কোচিংয়ে এবং সেখানে না পড়লে তাদের ফেল করিয়ে দেন।এই রকমের অপরাধ যারা করেন সেই জায়গাগুলো আমাদের একেবারে বন্ধ করতেই হবে।সেটার জন্য আমাদের চেষ্টা আছে।



মন্ত্রী বলেন,সারাদেশে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী স্থানীয় প্রশাসন ব্যবস্থা নিচ্ছে নানান জায়গায় অভিযান চালাচ্ছে।যারা বেআইনিভাবে নোট গাাইড বিক্রি করছে, ব্যবসা করছে।যেখানে আমরা অভিযোগ পাচ্ছি তদন্ত করে দেখছি।কোথাও কোন স্কুল জড়িত আছে কিনা বা কোন শিক্ষক জড়িত আছেন কি না। আমরা এই শিক্ষাব্যবস্থাকে আমরা আরও উন্নত করতে চাই।আমরা অনেকদূর এগিয়েছি। আমাদের অনেক দূর যেতে হবে।

 
 
যত্রতত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা অনেকাংশেই দেখা যায় যে,শিক্ষার মূল উদ্দেশ্যর বদলে ব্যবসায়িক একটা উদ্দেশ্যে কোথাও কোথাও বড় হয়ে ওঠে।অন্য যে কোন ধরনের প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার ক্ষেত্রে আগে অনুমতি নেয়া হয়।আমরা এখন ভাবছি,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়বার আগে অনুমতির বিষয়টি।

আপনার মন্তব্য